মহামারির পূর্বাভাস দেবে ফেসবুক-গুগল!

প্রকাশিত: এপ্রিল ২৭, ২০২০

বিশ্বব্যাপী করোনা বিপর্যয় মোকাবিলায় টেক কোম্পানিগুলো বিভিন্নভাবে কাজ করে যাচ্ছে। ইতিমধ্যে ফেসবুক ও গুগলের করোনাভাইরাস ট্র্যাকিং ম্যাপস পরিচালিত হচ্ছে রোগী শনাক্তের কাজে। তাই এই প্রতিষ্ঠানগুলো ভবিষ্যতে মহামারি সম্পর্কে পূর্বাভাস দিতে পারবে বলে জানায় গবেষকরা।

সম্প্রতি ডিজিটাল ট্রেন্ডসে প্রকাশিত এক প্রতিবেদন বলা হয়, ভবিষ্যতে যেকোনো মহামারি সম্পর্কে আগে থেকেই জানান দিতে পারবে ফেসবুক ও গুগল। মূলত, যুক্তরাষ্ট্রের কার্নেগী মেলন বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষকদের রিপোর্টের ওপর ভিত্তি করে এই দাবি করা হয়।

গুগল ও ফেসবুকের পরিচালিত কোভিড-১৯ সার্ভেতে মানুষ অংশগ্রহণ করছে। যেখানে ইউজারকে তার ও পরিবারের করোনাভাইরাসের উপসর্গ সংক্রান্ত তথ্য দিতে হয়। এভাবে সার্ভের জন্য তথ্য ও ইউজারের ডেমোগ্রাফিক ডেটার ভিত্তিতে ডেটাবেজ তৈরি হচ্ছে কোম্পানিগুলোর সার্ভারে।

গবেষকদের রিপোর্টে বলা হয়, করোনা উপসর্গ সংক্রান্ত এই সার্ভেতে লাখ লাখ মানুষ অংশ নিচ্ছে, যা থেকে কোভিড-১৯ সংক্রমণ ঠেকাতে তড়িৎ গতিতে কাজ করছে।

তাই ফেসবুক ও গুগলে সংগৃহীত ডেটা থেকে এই রোগের সাদৃশ্য অন্য কোনো রোগের উপসর্গের সঙ্গে মিলে গেলে আগে থেকেই স্বাস্থ্য অধিদফতরকে সতর্ক করতে পারবে। এরকম পূর্বাভাস কাজে লাগিয়ে বিশ্বব্যাপী স্বাস্থ্য অধিদফতরগুলো যেকোনো মহামারিতে হয়ত মৃত্যুর হার কমিয়ে আনতে পারবে এবং পূর্ব প্রস্তুতি নিতে পারবে।

উল্লেখিত সার্ভেতে, প্রতি সপ্তাহে ফেসবুকে ১০ লাখ এবং গুগলে গত সপ্তাহে প্রতিদিন ৬০ হাজার ইউজার অংশগ্রহণ করে।

সূত্র: গ্যাজেটস নাও