,
সংবাদ শিরোনাম :
» « পীরগঞ্জে মাথা ফাটল দারোগার : আটক ৫» « পীরগঞ্জে চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেটের ভাবীর ইন্তেকাল» « পীরগঞ্জে স্বেচ্ছাসেবক লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত» « পীরগঞ্জে মশক নিধন ও পরিচ্ছন্নতা সপ্তাহ উপলক্ষে র‌্যালী» « বালিয়াডাঙ্গীর পাড়িয়া ইউনিয়নে জিল্লুর চেয়ারম্যান নির্বাচিত» « পীরগঞ্জে ছেলে ধরা সন্দেহে ব্রডব্যান্ড সংযোগ প্রদান কাজে নিয়োজিত কর্মীকে গন পিটুনি» « পীরগঞ্জে টিএন্ডটি রাস্তার সংস্কার কাজ শুরু» « পীরগঞ্জে পঞ্চগড় এক্্রপ্রেস ট্রেনের যাত্রা বিরতি চায় এলাকাবাসী» « জাতীয় নারী ফুটবল চ্যাম্পিয়নশীপে বাফুফের ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদে ঠাকুরগাঁওয়ে বিক্ষোভ» « কাউকে গোনায় ধরেন না সানি লিওন

পুরস্কারের লোভ দেখিয়ে- হাতিয়ে নেওয়া হচ্ছে লাখ লাখ টাকা

খুরশিদ আলম শাওন ঃ “মাথাই নষ্ট মামা, ২০ টাকায় মোটর সাইকেল। ভাগ্যে থাকলে আপনিও পেতে পারেন। প্রতিদিন পাঁচ পাঁচটি মোটর সাইকেল সহ অসংখ্য আকর্ষনীয় পুরস্কার। ঝটপট টিকিট কিনে ফেলুন, রাত সাড়ে ১০টায় বাড়িতে টিভি’র সামনে বসে র‌্যাফল ড্র দেখে নির্বাচিত টিকিট নম্বরের সাথে আপনার কেনা টিকিটের নম্বর মিলিয়ে নিন” এভাবেই মাইক বাজিয়ে শত শত ইজি বাইকে করে ঠাকুরগাও জেলার আনাচে কানাচে বিক্রি করা হচ্ছে লটারীর টিকিট আর পুরস্কারের লোভ দেখিয়ে হাজার হাজার সাধারণ মানুষের কাছ থেকে হাতিয়ে নেওয়া হচ্ছে লক্ষ লক্ষ টাকা। সারা দিন মাইক বাজিয়ে টিকিট বিক্রি শেষে রাতে জেলার রানীশংকৈল উপজেলার নেকমরদ ওরস মেলায় এবং বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার পাড়িয়া ইউনিয়নের বহমতোল এলাকায় আনন্দ মেলায় প্রতিদিনই অনুষ্ঠিত হচ্ছে এ র‌্যাফল ড্র। স্থানীয় ক্যাবল টিভি’র মাধ্যম র‌্যাফল ড্র সরাসরি সম্প্রচার করা হলেও জেলা প্রশাসন বলছেন, কোথাও কোন প্রকার লটারীর অনুমতি দেওয়া হয়নি।
স্থানীয়রা জানায়, জেলার রানীশংকৈল উপজেলার নেকমরদ ইউনিয়নে পীর হযরত নাসিরউদ্দীন (রঃ) এর নামে প্রতি বছর সেখানে ১ মাস ব্যাপী ওরস মেলা বসে। এবারো পক্ষ কাল আগ থেকে মেলা শুরু হয়েছে। মেলায় প্রশসনের পক্ষ থেকে লটারী, জুয়া বা যাত্রা গানের অনুমতি না দেওয়া হলেও কয়েক দিন ধরেই চলছে আনন্দ অপেরা যাত্রা গান ও দৈনিক লটারী বা র‌্যাফল ড্র। নেকমরদ বাজার এলাকার ব্যবসায়ী আনোয়ার হোসেন, সুধির রায় জানান, কয়েক দিন ধরে মেলায় প্রতিদিনই মুক্তা র‌্যালফ ড্র নামে একটি প্রতিষ্ঠান লটারীর আয়োজন করেছে। মোটর সাইকেল সহ বিভিন্ন পুরস্কার দিচ্ছে। পুরস্কারের আশায় হাজার হাজার লোক টিকিট কিনছেন। প্রতিদিন দেড় শতাধিক ইজি বাইক মাইক লাগিয়ে টিকিট বিক্রির জন্য ভোরেই ছুটছেন জেলার আনাচে কানাচে। “মাথাই নষ্ট মামা, ২০ টাকায় মোটর সাইকেল” সহ বিভিন্ন মন ভোলানো কথা বলে তারা সাধারণ মানুষের দৃষ্টি কাড়ছেন। পুরস্কারের আশায় সাধারণ মানুষ টিকিট কিনতে হুমড়ি খেয়ে পড়ছেন। একেক জন ১০টা থেকে ২০ টা করে টিকিট কিনছেন। প্রতিদিন অন্তত ১৫ লাখ টাকার টিকিট বিক্রি হচ্ছে। অথচ পুরস্কার দেওয়া হচ্ছে মোটর সাইকেল সহ ৫ থেকে ৬ লাখ টাকার। বাকি টাকা লুটে নিচ্ছে আয়োজকরা। এভাবে প্রতিদিন লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেওয়া হচ্ছে।
রানীশংকৈল শিবদিঘি এলাকার জমসেদ জানান, প্রতিদিন বিভিন্ন সিরিজের এবং রঙের ১২ টা করে টিকিট কিনেন তিনি কিন্তু এক দিনও পুরস্কার পাননি। এরই মধ্যে দু’হাজারেরও অধিক টাকা গেছে তার। তার মত হাজার হাজার লোক লাখ লাখ টাকার টিকিট কিনলেও পুরস্কার পাচ্ছেন হাতে গোনা কয়েক জন। সুকৌশলে প্রতারণার মাধ্যমে সাধারণ মানুষের পকেট কেটে লুটে নেওয়া হচ্ছে টাকা। সুত্র জানায় অনেক ছেলে মেয়ে বাড়ির টাকা চুরি করে লটারী টিকিট কিনছে কিন্তু কিছুই পাচ্ছে না। পড়া বাদ দিয়ে রাত ১০টা বাজলেই বসে পড়ছে টিভি সেটের সামনে। গভীর রাত পর্যন্ত দেখছে র‌্যাফল ড্র’র অনুষ্ঠান। স্থানীয় কয়েক জন এর বিরোধিতা করলেও পাত্তায়ই পায়নি আয়োজকদের কাছে। মেলা কমিটির সভাপতি এনামুল হকের সাফ কথা, অনেক খরচ আছে। খরচ তুলতেই তারা প্রতিদিন লটারীর ব্যবস্থা করেছেন। মেলা যা কিছু হচ্ছে প্রশাসনকে জানিয়েই হচ্ছে।
এদিকে বালিয়াডাঙ্গীর বহমতোল এলাকায় আনন্দ মেলাতেও সবুজ বাংলা র‌্যাফল ড্র নামে একটি কোম্পানীর ব্যানারে প্রতিদিনই চলছে র‌্যাফল ড্র। সেখানেও একই কায়দায় হাতিয়ে নেওয়া হচ্ছে লাখ লাখ টাকা। তাদেরও দাবী প্রশাসনকে জানিয়েই তারা লটারীর আয়োজন করেছেন।
তবে জেলা প্রশাসক ড. কে এম কামরুজ্জামান সেলিম বলেন, জেলায় কোথাও কোন প্রকার লটারী বা র‌্যাফল ড্র কিংবা যাত্রা গানের অনুমতি দেওয়া হয়নি। তার পরেও কিভাবে চলছে-জানতে চাইলে তিনি বলেন, এটি তার জানা নেই। খোজ নিয়ে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

print

(Visited 90 times, 1 visits today)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সর্বশেষ সংবাদ