,
সংবাদ শিরোনাম :

এসএসসি: ঠাকুরগাঁওয়ে ভুল প্রশ্নে পরীক্ষা নেওয়ার অভিযোগ

এসএসসি পরীক্ষার প্রথম দিনে ঠাকুরগাঁও সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে বাংলা প্রথমপত্র পরীক্ষায় ২০১৮ সালের প্রশ্নপত্র দিয়ে পরীক্ষা শুরু করা হয়েছিল বলে অভিযোগ উঠেছে। পরে পরীক্ষা শুরুর ২০ মিনিট পর প্রশ্নপত্র পরিবর্তন করে সময় বাড়িয়ে পরীক্ষা নিয়েছে কেন্দ্র কর্তৃপক্ষ।

অভিভাবকদের সাথে কথা বলে জানা যায়, পরীক্ষা শেষ হওয়ার ২০ মিনিট সময় পেরিয়ে গেলেও পরীক্ষার্থীরা কেন্দ্রের বাহিরে না আসলে তারা চিন্তায় পড়েন। পরে পরীক্ষার্থীরা কেন্দ্রের বাহিরে আসলে অভিভাবকেরা জানতে পারে এই ঘটনা।

একাধিক পরীক্ষার্থী জানায়, বাংলা প্রথম পত্রের নৈর্ব্যক্তিক প্রশ্নপত্র পেয়ে উত্তর লেখা শুরু করে। পরে দেখে এটি ২০১৮ সালের প্রশ্নপত্র। এতে প্রায় ২০ মিনিট সময় অতিবাহিত হয়। পরে নতুন করে ২০২০ সালের প্রশ্নপত্র দেন দায়িত্বরত শিক্ষকরা। এতে অনেক কক্ষের পরীক্ষার্থীরা সময় বেশি পেলেও অনেকে সময় অতিরিক্ত সময় পায়নি বলে অভিযোগ করেছেন।

এ ব্যাপারে ঠাকুরগাঁও সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক ও কেন্দ্র সচিব সালেহা খাতুন বলেন, অসাবধানতায় কয়েকটি কক্ষে ২০১৮ সালের প্রশ্নপ্রত্র গেলে তা দ্রুত সমাধান করা হয়। পরীক্ষার্থীদের অতিরিক্ত সময় দেয়া হয়েছে।

প্রসঙ্গত, ঠাকুরগাঁওয়ে এবছর মাধ্যমিকে ২৪ টি কেন্দ্রে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১৯ হাজার ৮শ ৩৯, দাখিল ৭ টি কেন্দ্রে ৩ হাজার ১শ ২৯ ও কারিগরিতে ৯ টি কেন্দ্রে ২ হাজার ১শ ৩১ পরীক্ষার্থী অংশ গ্রহণ করে। এর মধ্যে মাধ্যমিকে ৫৩ পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অনুপস্থিত ছিল। আর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল ১ হাজার ৮শ ৩৯ জন।

print

(Visited 10 times, 1 visits today)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সর্বশেষ সংবাদ